​​​​আপনারা সকলেই হয়তো এর মধ্যেই অনেক ভালো একটি মিনি কোর্স তৈরি করে ফেলেছেন । যদি না জেনে থাকেন কিভাবে তৈরি করতে হবে তাহলে ৮ম দিন এবং ৯ম দিন এর পোস্ট চেক করুন এবং এর পর এই পোস্টটি পড়ুন।  এবং যখন কেউ আপনাকে সাবস্ক্রাইব  করবে আপনি আপনার মিনি কোর্স আপনার সাবস্ক্রাইবারকে ফ্রি তে গিফট করার সিধান্ত নিয়েছেন।

তার মানে আপনার লিস্টে যে যুক্ত হবে সে সম্পূর্ণ ফ্রি তে পাবে আপনার ফ্রি মিনি কোর্স টি। কিন্তু, এখানেও কিছু কথা থেকেই যায়-

কিভাবে আমি আমার মিনি কোর্সটি আমার সাবস্ক্রাইবার দেবো?

আপনাকে আপনার মিনি কোর্সটি আপনার সাবস্ক্রাইবারের কাছে পৌছে দিতে হলে আপনাকে এমন ভাবে আপনার ভিজিটরের সামনে উপস্থাপন করতে হবে যাতে করে তারা আপনার মিনি কোর্স টি ডাউনলোড করে। এখানে আপনি যদি একটি পোস্টে শুধুমাত্র এমন ভাবে লিখে রাখেন যে “ফ্রি কোর্স” অথবা “নতুনদের জন্য কোর্স” এবং আশা করেন সেগুলো সবাই পরে আপনার লিস্টের লিস্টে যুক্ত হতে আগ্রহী হবে তাহলে সেটা আপনার ভুল ধারণা। 

তাহলে সেক্ষেত্রে আপনাদের কি করতে হবে?

ছোট্ট একটা বিক্রয় পত্র বা সেলস পেজ বা অপ্টিন পেজ তৈরি করে ফেলুন। এই বিক্রয় পত্রটাতে আপনার কোর্সের সুবিধাসমূহ ও বিভিন্ন লক্ষ্য সম্পর্কে বলা থাকবে যার ফলে সবাই আপনার লিস্টে যুক্ত হতে চাইবে। বিশেষ করে আপনি বিক্রয় পত্রটাতে সরাসরি বলে দিতে পারেন যে, যত দ্রুত তারা সাবস্ক্রাইব করবে তত দ্রুত তারা কি কি সুবিধা পাবে।

উদাহরণ স্বরূপ এখানে আপনাদের জন্য একটি মিনি ল্যান্ডিং পেজের নমুনা দেয়া হলো-​​​​

Landing-page-example

প্রি-হেডলাইনঃ এইটা আসলে অত্যাবশ্যকীয় কিছু না, তবে আপনারা চাইলে সরাসরি মূল কথা না লিখে তার আগে একটা প্রি-হেডলাইন ব্যবহার করতে পারেন। যেমন ধরুন উপরের ছবিতে আমি লিখেছি "FREE BOOK DOWNLOAD + LIVE COMPLIMENTARY WORKSHOP। এখানে আমি আমার ভিজিটরকে একটু আকর্ষণ দিচ্ছি ফ্রি বই ডাউনলোড করুন এবং সাথে কমপ্লিমেন্টারি ওয়ার্কশপ ও হবে। এতে করে আমার ভিজিটররা আকৃষ্ট হবে।

হেডলাইন/ শিরোনাম: এই অংশটাতে আপনার লিস্টে যুক্ত হবার সব থেকে বড় সুবিধাটার কথা বলতে হবে। এখানে সুন্দর একটা লেখার মাধ্যমেই আপনাদের অফার সম্পর্কে সবাইকে আগ্রহী করে ফেলতে হবে। নিচের ছবিটি দেখুন আমি আমার ভিজিটরকে বলছি কিভাবে সহজ উপায়ে প্রতি মাসে ৫,০০০ ডলার ইনকাম করা যাবে - স্টেপ বাই স্টেপ কাজের চিটশিট। এই কথার মাধ্যমে আমি আমার মিনি কোর্স এর মূল বিষয়টি তুলে ধরেছি।  

পোস্ট-হেডলাইনঃ এখানে আপনি আসল সুবিধাটার পাশাপাশি অন্যান্য বড় সুবিধা গুলো সম্পর্কে বলতে পারেন। আপনার কোর্স টা যে সম্পূর্ণ ফ্রি সেটা যদি হেডলাইনে না বলে থাকেন তাহলে এখানে অবশ্যই বলে দেয়া উচিৎ। 

সূচনাঃ এখানে অল্প দুই-চারটা লাইনের মাধ্যমেই পাঠকদের আপনাদের পুরো লেখাটার প্রতি আকৃষ্ট করাতে হবে। এখানে আপনারা চাইলে সরাসরি মূল আলোচনায় যেতে পারেন অথবা আগে তাদের কোনো একটা সমস্যার কথা মনে করিয়ে দিয়ে ধীরে ধীরে সমস্যাটার সমাধান বলতে থাকবেন। 

এভাবে আপনার কোর্সের উদ্দেশ্যগুলো সম্পর্কে মনে করিয়ে দিয়ে পাঠকদেরকে সম্পূর্ণ ফ্রি তে আপনারা আপনাদের কোর্স গুলো অফার করুন।

বুলেট পয়েন্টঃ এই অংশটাতে আপনারা আপনাদের প্রধান সুবিধাগুলো বুলেট পয়েন্টের মাধ্যমে বলবেন। যেহেতু আপনার কোর্সটা পাঁচটা অংশে বিভক্ত সেহেতু এখানে কমপক্ষে পাঁচটা আলাদা আলাদা সুবিধার কথা উল্লেখ করবেন। 

মূল কথায় চলে যাওয়াঃ এই অংশটাতে আপনি আপনার লিস্টে সাবস্ক্রাইব করার নিয়মাবলী গুলো বলে দেবেন আর কেনো তাদের সাবস্ক্রাইব করা উচিৎ সেটা সুন্দর ভাবে বুঝিয়ে বলবেন। এমন ভাবে বুঝাবেন যাতে তারা দেড়ি না করে যত দ্রুত সম্ভব আপনার লিস্টে সাবস্ক্রাইব করে। তারপর আপনারা আপনাদের লিস্টে সাবস্ক্রাইব করার ফরমটা দিয়ে দিন। 

পোস্ট-স্ক্রিপ্ট (P.S.) বা শেষ কথাঃ এই অংশটাতে আপনি আপনার কোর্সের প্রধান সুবিধাটার কথা সবাইকে আবারো মনে করিয়ে দিয়ে সাবস্ক্রাইব করতে উদ্ভুত করবেন।

আজকের কাজঃ  আপনার কোর্সটা ভালোভাবে পড়ে যতগুলো সম্ভাব্য সুবিধা আছে লিখে ফেলুন। পরের অংশটাতে আপনাদেরকে এই নমুনা পত্রটা ব্যবহার করে কিভাবে আপনার নিজের হাই-কনভারটিং ল্যান্ডিং পেজ কিভাবে তৈরি করতে পারবেন সে সম্পর্কে আলোচনা করবো।

বিঃদ্রঃ পোস্ট ভালো লাগলে শেয়ার করতে ভুলবেন না।