কি ধরনের অফার খুঁজতে হবে এটা জানার আগে আপনার উচিত হবে – “আপনার পছন্দের নির্দিষ্ট কোন নিশ নির্ধারণ করা“। কারণ এখন দেখা যায় যে বেশীরভাগ নতুন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটার তারা শুরুতেই গেমিং, তারপর হয়তো দেখা যাচ্ছে ডেটিং অফার খুজছে, তার কিছুদিন পরই আবার অন্য কোনো অফার খুঁজতে থাকে। শেষ পর্যন্ত দেখা যায় যে কাজের কাজ কিছুই হয়নি। সুতরাং, কোনো একটা নির্দিষ্ট নিশ নির্ধারণ না করে এদিক সেদিক লাফালাফি করার কোনো মানে হয়না।

আচ্ছা চলুন আমাদের মূল আলোচনায় যাই – তাহলে প্রথমেই আপনাকে কোন টপিক্স বা নিশ সিলেক্ট করে নিতে হবে। আপনি যদি না জানেন কিভাবে ভালো নিশ খুজে নিতে হয় তাহলে দেখুন  কিভাবে ভালো একটা নিশ বাছাই করতে হয় । যেমন ধরুন আপনি যদি গেমিং–ই পছন্দ করেন তাহলে আপনার উচিৎ হবে প্রথমেই অ্যাফিলিয়েট ম্যানেজারকে জিজ্ঞাসা করা ওই সময়ে কোন গেমটা ভালো লিড পাচ্ছে।

একটা কথা মনে রাখবেন এই মার্কেটিং এ অনেক গুরু আছে তারা একেক জন একেকভাবে আপনাকে বিষয়টি বোঝানোর চেস্টা করতে পারে। আপনার জন্য সজহ হবে আপনার অ্যাফিলিয়েট ম্যানেজার এর সাথে কথা বলা। সে আপনার বন্ধুর মত সব সময় আপনাকে সাহায্য করবে। কারন আপনি লিড আনতে পারলে তারও লাভ আছে। আপনার অ্যাফিলিয়েট ম্যানেজারের কাছে আপনাকে জানানোর মতো এরকম অনেক অনেক তথ্য আছে সুতরাং তার সাথে যোগাযোগ করতে ভয় পাবার কোনো কারণ নেই। সাধারনত জিজ্ঞাসা করার ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই তারা আপনাকে একটা গেমের লিস্ট পাঠিয়ে দেবে যেগুলোকে আপনি প্রমোট করতে পারবেন।

এই লিস্ট দেখে আপনি প্রত্যেকটি অফার পেজ ওপেন করে করে দেখবেন কোন অফারটা কেমন এবং সেখান থেকে অফার নির্ধারণ করে নিতে পারবেন যে কোন গেমটা প্রমোট করবেন। একটা ব্যপার অবশ্যই মনে রাখবেন কিছু নির্দিষ্ট অফার আছে যেগুলো অনেক বেশি লিড এনে দিতে সক্ষম।

অফার সিলেক্ট এর ক্ষেত্রে যেই বিষয়গুলো দেখে নিতে হবেঃ

  1. অফার পেজটা যেন ডিজাইন এর দিক থেকে ভালো হয়
  2. অফার পেজ মোবাইলে সঠিকভাবে লোড হয় কিনা।
  3. প্রতি লিডে অন্তত ২-৫ ডলার কমিশন দিচ্ছে কিনা
  4. খুব গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে EPC (আরনিং পার ক্লিক)
  5. কোন কোন ট্রাফিক সোর্স অফারে অ্যালাউ করছে।

EPC (Earning Per Click):

আপনি হয়তোবা ভাবছেন আরনিং পার ক্লিক আবার কি? এটা খুব ই গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয়। একটু সহজ ভাবে বলি – এখানে আপনাকে আপনার সিপিএ নেটওয়ার্ক একটি হিসেব দেখায় এ আপনি প্রতি ক্লিকে কেমন টাকা উপার্জন করতে পারেন। এখন হয়তোবা ভাবছেন সিপিএ কি ক্লিকেও টাকা দেয়?

না, সিপিএ নেটওয়ার্ক আপনাকে ক্লিকে টাকা দেবেনা। প্রতি ক্লিকে আপনি কত টাকা ইনকাম করতে পারেন এটা বলতে যা বোঝানো হয় তা হচ্ছে এই মুহূর্তে যেই মার্কেটাররা এই অফার নিয়ে কাজ করছে তারা গড়ে কেমন ইনকাম করছে । আমি একটু উদাহরন দিচ্ছি তাহলে বুঝতে আরো সহজ হবেঃ

cpc-cost-per-click-image-example
cpc-cost-per-click-image-example

উপরের ছবিটি দেখুন এবং Network EPC দেখুন দেওয়া আছে $0.27 এর অর্থ কি ? এর অর্থ হচ্ছে এই অফারে আপনি যদি ভালো ট্রাফিক বা ভিজিটর পাঠাতে পারেন তাহলে প্রতি ভিজিটর থেকে ইনকাম করতে পারবেন $0.27 ডলার। আসুন তাহলে একটু হিসেব করি।

আপনি যদি ৫০০ ভিজিটর পাঠাতে পারেন এই অফারে তাহলে ইনকাম হবার সম্ভবনা আছে (500 x $0.27 = $135) ডলার। এখন এই ইনকাম কিভাবে হবে ক্লিকে নাকি লিডে? “Commission Details” -এ দেখুন লিখা আছে “Single Opt-in” । এর মানে হচ্ছে এই অফারে কেউ ইমেইল সাবমিট করলে আপনি কমিশন পাবেন ৩ ডলার। তাহলে EPC এর হিসেব টা আসলে কি তাইনা? হ্যা, হিসেবটি নিচে দেখুন বুঝতে পারবেন।

অফারে আমি যদি পাই ৩ ডলার তাহলে ১০০ লিডে আমি পাবো ৩০০ ডলার।

অফারের EPC যদি হয় $0.27 তাহলে ৫০০ ভিজিটর থেকে আমি পাবো 500 x $0.27 = ১৩৫ ডলার ।

তাহলে ১৩৫ ডলার যদি আমি ইনকাম করি তাহলে আমার কতগুলো লিড বা সাইনাআপ লাগবে? হ্যা, উত্তরটার কাছাকাছি আছি আমরা। ১৩৫ / ৩ = ৪৫ টা লিড আমার লাগবে।

এখন আসুন ৪৫ টা লিড পেতে আমার কত ভজিটর পাঠাতে হয়েছে? মনে আছেতো? আমাদের ৫০০ ভিজিটর পাঠাতে হয়েছে। তাহলে এখন আপনি হিসেব করে দেখুন যদি আপনি ৪৫ টা লিড পান তাহলে প্রতি ভিজিটর থেকে আপনার ইনকাম কত হয়েছে। হিসেব টা সহজ – আপনি অফার থেকে মোট যেই টাকা ইনকাম করলেন তা মোট ভিজিটর এর গড় করলে দেখবেন আপনার EPC আপনি পেয়ে গেছেন। আশা করি বুঝতে পেরেছেন।

এই EPC অনুযায়ী যে আপনি ইনকাম করতে পারবেন এঁর কোন গ্যারান্টি নেই। এটা আপনাকে আনুমানিক একটা হিসেব তারা দিচ্ছে। আপনাকে এমন অফার নিতে হবে যেই অফারের EPC টা ভালো। যদিও এইটা সবসময় সুনির্দিষ্ট না তারপরও আপনি একটা যথাযথ উপার্জন সম্পর্কে ধারণা পেতে পারেন এখান থেকে।

এর পাশাপাশি আপনাকে আরো দেখতে হবে ওই অফারে কোন কোন ট্রাফিক সোর্স তারা অ্যালাউ করছে। ট্রাফিক সোর্স সম্পরকে যদি না জেনে থাকেন তাহলে দেখুন – সি.পি.এ মার্কেটিং এ ট্রাফিক টাইপ কি – একাউন্ট সাসপেন্ড থেকে বাঁচুন

অন্যান্য সাহায্যকারী পোস্টসমুহঃ