Namecheap নাকি GoDaddy? অনেকের কাছেই আমাকে এই প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয়েছে। উত্তর দেয়ার আগে বলে নেই আমি উভয় জায়গা থেকেই ডোমেইন নিয়েছি। সুতরাং, এই পোস্টে আমি যা যা লিখবো সব আমার আগের অভিজ্ঞতা থেকেই লিখবো।

আপনার যারা লেখাটা পড়ছেন আমি ধরে নিচ্ছি আপনারা ডোমেইন কি সেটা অন্তত জানেন। তারপর ও বলে রাখি ডোমেইন হলো ইন্টারনেট জগতে আপনার নাম । আপনি কোথা থেকে নামটা নিয়েছেন এটা কোন আসল ব্যাপার না। এই লেখাটাকে আমি সর্বমোট ৬ টা অংশে ভাগ করেছি যাতে আপনারদের বুঝতে কোনো সমস্যা না হয়।

চলুন তাহলে মূল আলোচনায় যাওয়া যাক।

Namecheap নাকি GoDaddy? কোথায় থেকে ডোমেইন নেবেন? @wamdigi

Click to Tweet

১. ডোমেইন এর দাম কোথায়, কেমন ?

ডোমেইন বিক্রেতাদের সব থেকে খারাপ দিক হলো তারা শুরুতে ১ বছরের জন্য কম দামে বিক্রি করে তারপর ধীরে ধীরে দাম বাড়াতে থাকে। এজন্য সব থেকে ভালো হয় সব যায়গায় ঘুরে ঘুরে .com সাইট গুলোর প্রতি বছর রিনিউ করার মূল্য দেখে নেয়া।

GoDaddy সাধারণত একটা .com ডোমেইন জন্য প্রতি বছর ০.৯৯ ডলার নেয়।

অন্যদিকে, Namecheap একটা .com ডোমেইন এর জন্য প্রতি বছর ১০.৬৯ ডলার করে নিয়ে থাকে।

সুতরাং, ধরে নিচ্ছি আপনি কিছু টাকা বাঁচাতে চাচ্ছেন এবং সেক্ষেত্রে অবশ্যই আপনি GoDaddy টাকেই হয়তো বেছে নিবেন। যেখানে আপনি GoDaddy থেকে ০.৯৯ ডলারেই একটা .com ডোমেইন কিনতে পারছেন সেখানে Namecheap আপনার কাছ থেকে একটা .com সাইটের জন্য নেবে ১০.৬৯ ডলার। কিন্তু, এক্ষেত্রে Namecheap আপনার ডোমেইন এর সাথে WHOIS Guard এবং আপনার ইমেইল ইন করে দেবে।

এরপর ও যদি আপনি জিজ্ঞাসা করেন যে Namecheap নাকি GoDaddy? তাহলে আমি বলবো আপনি যদি শুধুমাত্র ২ বছরের জন্য আপনার আপনার সাইট আপনার পছন্দের নামে চালাতে চান এবং পরবর্তীতে সেটা পরিবর্তন করতে হলেও কোনো সমস্যা নেই তাহলে GoDaddy টাই ভালো হবে। কিছু টাকাও বাঁচাতে পারবেন।

তাছাড়া GoDaddy Domain Discount Club এর নিয়ম অনুযায়ী আপনি যদি ১২০ ডলার দিয়ে সেখানে জয়েন করেন তাহলে পরবর্তীতে তে তারা আপনার কাছ থেকে একটা .com সাইটের জন্য প্রতি বছর ৮.২৯ ডলার করে রাখবে। সাথে একটা নিলামে বিড করার অনুমোদন দেবে যেখানে বিড করে আপনাকে কমপক্ষে ১০০ টা ডোমেইন জিততে হবে নাহলে আপনার দামের ক্ষেত্রে নড়চড় হতে পারে। সেক্ষেত্রে দেখা যাবে যে দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনার জন্য Namecheap এর খরচটাই কম পরবে।

কিন্তু একটা ব্যাপার আপনারা সবাই হয়তো জানেন যে, শুধুমাত্র ডোমেইন এর দামটাই প্রধান না। এর সাথে আনুষঙ্গিক অনেক কিছু থাকে যেগুলোও ভাবতে হয়।

২. ডোমেইন ব্যবহারের অভিজ্ঞতা

নিচে NameCheap অ্যাকাউন্ট এর একটা পেজের ছবি দেয়া হলো-

namecheap image

আর এইটা হলো GoDaddy অ্যাকাউন্টের একটা ছবি-

আমি ব্যাক্তিগত ভাবে যখনি ডোমেইন কেনার জন্য ডোমেইন বিক্রেতা বাছাই করবো সবার আগে যে ব্যপারগুলো নিয়ে চিন্তা করবো সেগুলো হলো কেনার সময়, ব্যবহার করার সময় এবং সাইটের সর্বোপরি অভিজ্ঞতাগুলো কেমন। এই সম্পর্কে আরো কিছু সুনির্দিষ্ট বিষয় নিয়ে কথা বলবো তার আগে NameCheap এবং GoDaddy সম্পর্কে কোন কোন বিষয় গুলো আমার ভালো লাগে আর কোন বিষয়গুলো ভালো লাগে না সে সম্পর্কে কিছু বলে নেই।

প্রথমে Namecheap সম্পর্কে বলি-

  • মাঝে মাঝে অটো-রিনিউ (পুনরায় সক্রিয়) করার সময় সমস্যা দেখা যায়
  • একদম ধরাবাঁধা চেকআউট পদ্ধতি যেটা নতুনদের বুঝতে খুব সহজ হয়
  • পরামর্শ মুলক ইঞ্জিনটা অনেক ভালো
  • তথ্যগুলো সব সুন্দরভাবে একসাথে গুছানো থাকে
  • চ্যাটিং এর মাধ্যমে খুব দ্রুত সহায়তা পাওয়া যায় যদিও মোবাইলে কোনো সহায়তা পাওয়া যায় না

এবার GoDaddy সম্পর্কে কিছু জেনে নিন-

  • চেকআউট পদ্ধতিটা বিভ্রান্তিকর
  • ডোমেইন ম্যানেজার ভিন্ন একটা উইনডোতে ওপেন হয় যেটা অনেক সময় অন্যরকম মনে হয়
  • সাজেশন ম্যানেজার অনেক বেশী আপসেল অফার দেখায়
  • কালার বিন্যাসটা অনেক সুন্দর পরিচ্ছন্ন
  • অনেক অনেক তথ্য থাকে
  • ইমেইল, চ্যাট সহায়তার পাশাপাশি মোবাইলে সহায়তাটাও অনেক ভালো

সর্বোপরি আমি বলবো আপনারা চাইলে দুইটার যেকোনো টা তেই যেতে পারেন কিন্তু GoDaddy তে গেলে দেখবেন আপনাকে একটা ডোমেইন কিনতে হলে আগে একটা ইমেইল সহ একটা ছবির প্যাকেজ কিনতে হবে। অন্যদিকে NameCheap থেকে কিনতে গেলে আগেই বলেছি ডোমেইন এর সাথে ইমেইল ফ্রি তেই দিয়ে দেবে।

৩। ওয়েবসাইট ইন্টারফেস সম্পর্কে ধারনা

আমি চাইলে এই ব্যাপারটা আগের অভিজ্ঞতার ওই অংশটার মধ্যেই আলোচনা করে দিতে পারতাম কিন্তু সেটা না করে সম্পূর্ণ আলাদা একটা অংশে আলোচনা করছি কারণ হলো এই অংশটা অভিজ্ঞতার অংশটা থেকে অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। ডোমেইনে যেটাকে DNS Maneger বলা হয়ে থাকে সেটা মূলত এমন একটা জিনিস যেটা আপনার সাইটের নাম কনফিগার করে রাখে। একটা খারাপ ইন্টারফেস অনেক সময় বেশি বিরক্তিকর একটা সমস্যা হয়ে দাঁড়াতে পারে যেখানে একটা ভালো ইন্টারফেস একবারেই খুব সহজেই সেট আপ করে নেয়া যেতে পারে।

এখানে আপনাদের সুবিধার জন্য আমার NameCheap এবং GoDaddy এর ডোমেইন/ডি. এন. এস. ম্যানেজার এর দুইটা ছবি দিয়ে দিয়েছি ।

GoDaddy:

godaddy

NameCheap:

namecheap

সহজ ভাবে বলতে গেলে DNS ম্যানেজার হলো এমন একটা জিনিস যেটা ব্যবহার করে আপনি আপনার ডোমেইনের নাম কনফিগার করে নিতে পারবেন। যেমন ধরুন আপনি আপনার ডি. এন. এস. (DNS) টাকে হোস্টিং কোম্পানির সাথে সংযোগ করে ইমেইল সেট আপ করার মাধ্যমে একটা সাব ডোমেইন সেট করে নিতে পারবেন। আপনি অল্প একটু চেষ্টা করলেই খুব সহজেই আপনার হোস্টিং কোম্পানির সাথে ডি. এন. এস. (DNS) টা পুনরায় সংযুক্ত করে নিতে পারবেন। একটা কথা মাথায় রাখবেন, এই জায়গাটাতে কিন্তু কোনো ভুল করা যাবে না কারণ এখানে কোনো ভুল করলে আপনার সাইট ডাউন হয়ে যেতে পারে । আর একবার সাইট ডাউন হয়ে গেলে সেটা ঠিক করা অনেক কষ্ট ও সময়ের ব্যাপার।

সুতরাং, এই জায়গায় আপনার সম্পূর্ণ সতর্কতার সাথে কাজ করতে হবে। এখন যদি আপনাকে জিজ্ঞাসা করি যে এই ক্ষেত্রে কোনটা ভালো, GoDaddy নাকি NameCheap? আপনি যদি উপরের ছবি দুইটা ভালোভাবে দেখে থাকেন তাহলেই বুঝতে পারবেন যে যদিও GoDaddy অন্যান্য সকল ডোমেইন দাতাদের থেকে অনেক ভালো তারপর ও সেটা NameCheap এর কাছে এই ক্ষেত্রে কিছুই না। NameCheap এ আপনার প্রয়োজনীয় সকল অপশনগুলো সুন্দরভাবে সাইডবারে সাজানো থাকবে এবং প্রয়োজনের সময় সেগুলো ব্যবহার করতে পারবেন।

ওদিকে GoDaddy তে আবার অতিরিক্ত কিছু সেটিংস থাকে যেগুলোর কারণে GoDaddy কেও একবারে বাদ দেয়া যায় না। GoDaddy র একটা সুন্দর ভালো দিক হলো এটা এত বেশি ব্যবহৃত হয় যে যেকোনো সময় ইন্টারনেট থেকে অথবা সরাসরি GoDaddy থেকে সহায়তা নিতে পারবেন।

৪. অতিরিক্ত বিষয়সমূহ

আপনি যখন একটা ডোমেইন কিনবেন তখন আসলে এমনিতেই অতিরিক্ত কিছু বিষয়ের মধ্যে জড়িয়ে যাবেন। যদিও বিষয় গুলো অতিরিক্ত তারপরও অনেক সময় মুল্যবান ব্যপার হয়ে দাঁড়াতে পারে।

এখানে আমি কিছু অতিরিক্ত বিষয় সম্পর্কে আলোচনা করতে যাচ্ছি-
  • নিরাপদ ডি. এন. এস.- GoDaddy এর DNS হ্যাক হয়েছিল কিন্তু NameCheap DNS কখনো হ্যাক হয়নি। যদিও এইটা হয়তো ইচ্ছে করেই করা হয়েছিল তারপর ও নিরাপত্তার একটা প্রশ্ন থেকেই যায়।
  • ইমেইল- NameCheap এ এইটা সম্পূর্ণ ফ্রি কিন্তু GoDaddy অনেক সময় এর জন্য আলাদা খরচ করতে হয়।
  • WHOIS নিরাপত্তা ব্যবস্থা- NameCheap এইটাও ফ্রিতে দেয় কিন্তু GoDaddy এর জন্য অতিরিক্ত মূল্য নেয়।
  • হোস্টিং – GoDaddy আপনাকে একটা নির্দিষ্ট সময়ের জন্য হোস্টিং করবে কিন্তু NameCheap অনেক দিন পর্যন্ত হোস্টিং এর অফার করবে।
  • নিজস্বায়িত ডি. এন. এস.- NameCheap আপনাকে ফ্রিতে আপনার নিজস্বায়িত সার্ভার দিলেও GoDaddy সেটা দেবে না।

আরো একটা ব্যাপার এখানে বলা যেতে পারে যে, NameCheap যেখানে বিভিন্ন টেকনিক্যাল বিষয়ে বেশী মনযোগী সেখানে GoDaddy পরে থাকে ছবি সংরক্ষণ আর হোস্টিং নিয়ে। সুতরাং, অতিরিক্ত এই সকল কিছু বিবেচনা করলে দেখা যাবে যে, GoDaddy এর চেয়ে NameCheap এই ক্ষেত্রেও অনেক অনেক এগিয়ে।

৫. আপসেলস অফার সমূহ

আপসেল ব্যপারটা বুঝতে হয়তো আপনাদের অনেকের কষ্ট হচ্ছে। চিন্তার কিছু নেই, সম্পূর্ণ বিষয়টাকে সহজ ভাবে বুঝিয়ে দিচ্ছি। আপসেল হলো আপনি যখন কোনো কিছু কিনতে যাবেন তখন তার সাথে আনুষঙ্গিক আরো কি কি লাগতে পারে সেগুলো দেখিয়ে দেয়া। এইটা অনেক সময় বিরক্তিকর মনে হতে পারে কিন্তু ব্যাপারটা অনেক অনেক বেশী গুরুত্বপূর্ণ। আর ডোমেইন কেনার সময় তো আরো বেশী প্রয়োজন।

উদাহরণস্বরূপ বলা যেতে পারে, ১৯৯৭ সালের আগ পর্যন্ত কেউ যখন কোনো ডোমেইন যেমন pizza.com অথবা walmart.com কিনতো তখন শুধু ডোমেইন দিয়েই কোনো কিছু হতো না। তার সাথে তার একটা ওয়েবসাইট থাকাটাও জরুরী ছিল। আমি মনে করি যে, সবসময়ই আপনার ওয়েবসাইটের ডোমেইন নেম আপনার হোস্টিং নেম থেকে ভিন্ন হওয়া উচিৎ। কাজটা যদিও একটু ভিন্নধর্মী তারপরও ভিন্ন নাম রাখাটাই বুদ্ধিমানের কাজ বলে আমার মনে হয়।

যাইহোক, Namecheap এবং GoDaddy উভয়েই বিভিন্ন্ আপসেল, হোস্টিং ও স্টোরেজ অফার করে। উভয়েই অনেক সময় পরিপূর্ণ এক পেজের একটা ওয়েবসাইটের জন্য মোট আপসেল অফার করে এবং আপনি যদি খুব দ্রুত আপনার সম্পূর্ণ একটা ওয়েবসাইট পেতে চান তাহলে এই অফারগুলোর মাধ্যমে নিয়ে নিতে পারবেন।

সর্বোপরি বলা যায় GoDaddy যদিও চমৎকার সব মূল্য নির্ধারণ করে তারপরও এটাকে কেমন যেন বেশী স্বস্তিকর মনে হয় না। Namecheap ও অনেক ভালো ভালো অফার করে কিন্তু সেগুলো অন্যান্য সব প্রোডাক্টের ক্ষেত্রে।

৬. আমাদের এই আলোচনার মূলকথা

ব্যবসা যখন করবই, ভালো কোম্পানির সাথেই করবো। আর এই ব্যপারটা যখন Namecheap কিংবা GoDaddy এর ক্ষেত্রে হবে তখন আমি Namecheap টাকেই বেছে নেবো।

যতদিন এই সকল বিষয় নিয়ে পুরো ইন্টারনেট জগতে বিতর্ক চলছিল ততদিনে GoDaddy অনেক গুলো সেক্টরে উন্নতি করে একটা পজিশন করে নিয়েছে ইন্টারনেট জগতে। তাছাড়া এখনো তাদের যথেষ্ট সামর্থ্য আছে আরো বেশী উন্নতি করার।

Namecheap আইনসংগত ভাবে লড়ার জন্য একটা ইলেকট্রনিক ফাউন্ডেশনের সাথে যৌথভাবে কাজ করে যাচ্ছে। যদিও এটা নিয়ে অনেক বিতর্ক ছিল কিন্তু তারপরও তারা এখন তাদের অবস্থান অনেকটা পরিস্কার করেছে।

GoDaddy ও অন্য একটা বিতর্কের মধ্যে জড়িয়ে গেছে সেটা হলো তারা তাদের মার্কেটিংয়ে যৌনতা ছড়িয়ে দিচ্ছে। যার কারণে তাদেরকেও হোস্টিং প্রোডাক্ট সেল করতে বিভিন্ন কাটখোট্টা পেরুতে হচ্ছে। তাদের বিখ্যাত CEO সবার সাথে যথাসাধ্য চেষ্টা করে যাচ্ছে তাদের কাস্টমারদের ধরে রাখতে।

Namecheap নাকি GoDaddy? বিতর্কের উপসংহার-

আলোচনার শুরুর দিকেই আপনাদের জানিয়ে দিয়েছি যে আপনি যেখান থেকেই ডোমেইন কিনে থাকেন না কেন, সেটা আসলে কোন ব্যাপার না। GoDaddy আসলেই অনেকের কাছে অনেক ভালো বিশেষ করে যারা কম খরচে স্বল্পস্থায়ী ডোমেইন নিতে চায় এবং মোবাইলে সহায়তা পেতে চায় তাদের জন্য। কিন্তু, আমি বলবো যে আপনি যদি দীর্ঘমেয়াদি কোনো ওয়েবসাইট চালু করতে চান তাহলে Namecheap থেকে ডোমেইন নিন। আমার অভিজ্ঞতার পর্যালোচনা যদি সঠিক হয়ে থাকে তাহলে আপনি ঠকবেন না।

আপনি যদি অন্য কোথাও থেকে ইতিমধ্যে ডোমেইন নিয়ে থাকেন সেক্ষেত্রেও Namecheap এর খুব সহজ একটা উপায় আছে যার মাধ্যমে আপনি আপনার ডোমেইন এখানে ট্রান্সফার করে নিতে পারবেন।

সুতরাং, শুভ কামনা সবার জন্য। আপনাদের কারো যদি এসম্পর্কে কোন প্রশ্ন থাকে বা কোনো মন্তব্য থাকে তাহলে কমেন্টে সেগুলো নির্দ্বিধায় জানাতে পারেন।

Namecheap.com