আপনারা সবাই হয়তো জানেন যে, সকল ভিজিটরকে দিয়ে সাইটে সাবস্ক্রাইব করানো অনেক কঠিন একটা কাজ। কারণ হলো ভিজিটররা চায়না যেকোনো সাইটে গিয়ে তাদের ইমেইল অ্যাড্রেস ও অন্যান্য ব্যাক্তিগত তথ্য দিয়ে সাবস্ক্রাইব করতে।

প্রচলিত ধারণা অনুযায়ী আপনার লিস্টে যদি একজন স্থায়ী সাবস্ক্রাইবার থাকে তাহলে গড়ে প্রতি বছরে তার মূল্য হবে ১ ডলার এর সমান। অর্থাৎ, আপনার লিস্টে যদি ১০,০০০ জন স্থায়ী কাস্টমার থাকে তাহলে আপনি সেখান থেকে প্রতি বছরে পাবেন ১০,০০০ ডলার।

সুতরাং, বেশীরভাগ ব্লগার ও অন্যান্য প্রকাশকদেরই প্রধান লক্ষ্য থাকে ভিজিটরদেরকে তাদের ইমেইল এর মাধ্যমে ধরে রাখা। এরকম শ্রোতা বা স্থায়ী ভিজিটর যদি না থাকে তাহলে আপনি কখনোই একজন ভালো মার্কেটার বা ব্লগার হতে পারবেন না, আর স্থায়ী ভিজিটর পাবার একমাত্র উপায় হলো সাবস্ক্রাইব করা ভিজিটর।

ভিজিটরদের ধরে রাখার অনেকগুলো সহজ উপায় আছে। তার মধ্যে সবথেকে বেশী ব্যবহৃত পদ্ধতিটা হলো লাইটবক্স (lightbox) মডেল, এইটা মূলত পেজ ​​​​এক্সিট (Page Exit) অথবা ওয়েবসাইটে ভিজিট করার কয়েক সেকেন্ড পর স্ক্রিনের উপরে দেখা যায়। কিন্তু, এখানে একটা সমস্যা হলো সাবস্ক্রাইব করতে হলে একটা ফরম পূরণ করতে হয়, যেটা অনেকটাই বিরক্তিকর। অন্য আরেকটা পদ্ধতি হলো টপ বার (Top Bar) যার কাজ হলো ইমেইল সংগ্রহ করা। এটাও লিঙ্ক বা ফরম আকারে ব্লগ পোস্টের নিচে দেখা যায়।

পরিচিতিঃ OptinChat Pro

Optin Chat Pro হলো সারা জাগানো একটা টেকনোলজি যার মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয় ভাবে আপনার ভিজিটরদেরকে সাবস্ক্রাইবারে পরিণত করতে পারবেন। এর মাধ্যমে শুধু ট্রাফিকের সংখ্যাই বাড়বে না, তার সাথে যত বেশী সম্ভব ভিজিটরদেরকে সাবস্ক্রাইবারে পরিণত করা যাবে।

OptinChat Pro ওভারভিউঃ

  • সহজে ব্যবহার যোগ্যতা (User Friendly System) – ৯.২/১০
  • বৈশিষ্ট্য (Features) – ৯.০/১০
  • কোয়ালিটি (Quality) – ৯.১/১০
  • মূল্য (price) – ৯.৫/১০

আচ্ছা কেমন হয় যদি ভিজিটরদের সাথে চ্যাট করে তাদের কাছ থেকে ইমেইল অ্যাড্রেস নেয়া যায়?

কিছুদিন হলো আমি ইমেইল অ্যাড্রেস সংগ্রহ করার একটা নতুন পদ্ধতি পরীক্ষা করছি যার নাম হলো OptinChat Pro এবং এটার রেজাল্ট দেখে আমি সত্যিই অবিভুত হয়েছি। সরাসরি নাম আর ইমেইল অ্যাড্রেস সংগ্রহ না করে এটা ইউজারদের সাথে চ্যাট করে তাদের কাছ থেকে নাম আর ইমেইল অ্যাড্রেস চেয়ে নেয়। আপনারা চাইলে আমার ওয়েবসাইটে এটা এখনো চলছে, দেখে নিতে পারেন। এটা মেসেজ দেবার সময় একটা ding’ শব্দ করে যার মাধ্যমে ভিজিটররা সহজেই এটা দেখতে পাবে।

optinchat pro

ছবিতে এই চ্যাটটা দেখুন, এটা কিন্তু কোনো সরাসরি চ্যাট না তারপরও দেখে মনে হচ্ছে লাইভ চ্যাট এর মতোই। মানুষের একটা সহজাত নেশা হলো কারো মেসেজের উত্তর দেয়া সুতরাং এক্ষেত্রে সফলতা অনেক বেশী আসে। এই চ্যাট মডিউলটা ওয়েবসাইটের ডানপাশে নিচের দিকে থাকবে। আপনি চাইলেই এরকম একটা মডিউল তৈরি করে আপনার ওয়েবসাইটে বসিয়ে দিতে পারেন।

ওখানে বিভিন্ন প্রশ্ন তৈরি করার একটা সিস্টেম আছে আপনি চাইলে সেটা ব্যবহার করে চ্যাট মডিউল কনফিগার করতে অথবা জাভাস্ক্রিপ্ট কোড (JS Code) তৈরি করে আপনার ওয়েবসাইটে ইন্সটল করে দিতে পারবেন।

এই লিঙ্কে ক্লিক করে OptinChat Pro ডেমো দেখে নিতে পারেন।

এটার একটা ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন (WordPress plugin) ও আছে যার মাধ্যমে আপনি চাইলে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগেও এটা যুক্ত করে দিতে পারবেন। অথবা আপনি চাইলে সরাসরি এর জাভাস্ক্রিপ্ট (JS code) কোডটা আপনার ওয়ার্ডপ্রেসে ব্লগে বসিয়ে দিতে পারবেন।

ফানেল (Funnel) দেখতে পারাঃ 

OptinChat এর একটা ফানেল সিস্টেম আছে যেটার মাধ্যমে আপনি বিভিন্ন পরিসংখ্যান দেখতে পারবেন। কি পরিমান ইমপ্রেশন পরেছে, কতগুলো ইউনিক ভিউ হয়েছে, কতগুলো ইমেইল সংগ্রহীত হয়েছে সব কিছু এর মাধ্যমে স্পষ্টভাবে দেখা যায়।

উপরের ছবিটা দেখলে বুঝতে পারবেন, গত কয়েকদিনের মধ্যেই OptinChat Pro এর মাধ্যমে আমি আমার ব্লগে ২২৩ টা ইমেইল সংগ্রহ করেছি যার কনভার্সন মূল্য আবার ১০.৩৩% । প্রথম দিকে যেটা ছিল ১৪% । সুতরাং, বলা চলে এটা লাইটবক্স (lightbox) এর তুলনায় প্রায় দ্বিগুণ ।

তথ্য ডাউনলোড করাঃ

আপনারা যদি চান যে, সকল তথ্য ডাউনলোড করে রাখবেন তাহলে ভিউ রেকর্ডে গিয়ে “download a CSV file” এ ক্লিক করলেই সবকিছু ডাউনলোড হয়ে যাবে। এটাকে আবার আপনারা তারিখের ভিত্তিতে ফিল্টার ও করে নিতে পারবেন।

আপাতত এটা শুধুমাত্র সিএসভি (CSV) ফরমেটেই ডাউনলোড করা যাবে এবং আপনার অটোরেস্পন্ডারের সাথে কানেক্ট করে দিতে পারবেন।

যখন ই কেই তার তথ্য দেবে সেটা সরাসরি আপনার অটোরেসপন্ডারে পাঠিয়ে দেবে।

গতি এবং এসইও (SEO) এর জন্য অপটিমাইজ করাঃ

OptinChat Pro সাধারণত স্ট্যাটিক সার্ভার দিয়ে লোড না করে CDN এর মাধ্যমে লোড করে যেটা কিনা সর্বোচ্চ গতিতে লোড করার জন্য অপটিমাইজ করা। এছাড়াও এটা একটু ভিন্নভাবে লোড করে যেটা আপনার ওয়েবসাইটের লোডিং স্পীড অথবা এসইও তে কোন ধরনের প্রভাব ফেলবে না।​​​​

নিরাপত্তা ও সকল তথ্য একত্রীকরণঃ 

আপনার সকল তথ্য একটা নিরাপদ সার্ভারে সংরক্ষন করা থাকবে যার লগইন করার অংশটা HTTPS দ্বারা সিকিউরড করা। আপনার সকল তথ্য ওখানে নিরাপদ এবং অন্য কারো পক্ষে সেখানে প্রবেশ করা সম্ভব না।

সুবিধাসমূহঃ

OptinChat Pro  -তে যেসব নতুন ফিচার যুক্ত করা হয়েছে সেগুলো হলো–

  • ভিন্ন ভিন্ন পেজে ভিন্ন ভিন্ন মেসেজ দেখতে পারা যাবে
  • চ্যাট উইনডো তে ছবি দেখতে পাওয়া যাবে
  • কোনো ভোট অথবা সার্ভে পরিচালনা করা যাবে
  • ফিডব্যাক সংগ্রহ করে আপনার ইমেইলে পাঠিয়ে দেবে
  • ফোন নাম্বার সংগ্রহ করা যাবে
  • গুরুত্বপূর্ণ ইমেইল মার্কেটিং পদ্ধতিগুলোর সাথে সংযুক্ত করে নেয়া যাবে

সুতরাং একবার ব্যবহার করেই দেখুন আর সাথে অন্য কোন কোন ফিচার যুক্ত করলে ভালো হবে নিচে কমেন্টে জানিয়ে দিন।

সবশেষে, সিদ্ধান্ত আপনার ! 

সর্বোপরি আমার মনে হয় এই তথ্যগুলো আপনার সিদ্ধান্তগ্রহণে অনেক সহায়ক হবে। তারপরও যদি এসম্পর্কে কোনো কিছু জানার থাকে তাহলে অনুগ্রহ করে নির্দ্বিধায় আমার সাথে যোগাযোগ করবেন। পরিশেষে, সবাইকে ধন্যবাদ OptinChat Pro রিভিউটি পড়ার জন্য।