রিভিউ ভিডিও এর মাধ্যমে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং

কিভাবে রিভিউ ভিডিও এর মাধ্যমে আপনি অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করতে পারবেন। এবং আপনার কনটেন্ট বা ভিডিও কিভাবে খুব দ্রুত গুগলে র‍্যাঙ্কিং করতে পারবেন, যেখান থেকে আপনি অনেক অনেক ফ্রি ভিজিটর পাবেন। 

হ্যা, আমি এই পোস্টে চেস্টা করবো আপনাকে সম্পূর্ণ বিষয়টি আলোচনা করার। সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পরে আপনার মতামত নিচে কমেন্ট বক্স এ লিখবেন এবং ভালো লাগলে শেয়ার করবেন। 

তো চলুন শুরু করা যাক, আমার মনে হয় আপনি জানেন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং কি? অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং হচ্ছে কমিশন বেজ মার্কেটিং করা। এখানে আপনি অন্যের পণ্য বিক্রি করার জন্য মার্কেটিং করবেন এবং যদি পণ্য বিক্রি হয় তাহলে আপনি একটি কমিশন পাবেন। এখানে আপনাকে চাকুরির মত ফিক্সড কোন তাইম বেধে দেওয়া হবেনা। আপনি স্বাধীন ভাবে কাজ করতে পারবেন। 

যদি আপনি অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এ একেবারেই নতুন হয়ে থাকেন তাহলে ৩০ দিনের অ্যাফিলিয়েট কোর্স এর পোস্ট গুলো দেখতে পারেন।

কিভাবে আমরা রিভিউ ভিডিও এর মাধ্যমে অ্যাফিলিয়েট শুরু করতে পারি?

আপনাকে প্রথমে আমাদের স্ত্রেটিজিটি বুঝতে হবে এবং এর পর কাজের স্টেপ গুলো বললে খুব সহজেই আপনি কাজ শুরু করতে পারবেন ইনশাল্লাহ। 

আমাদের মূল প্লান হচ্ছে ডিজিটাল প্রোডাক্ট বিক্রি করা এবং আমাদের এমন প্রোডাক্ট খুজতে হবে যেই প্রোডাক্ট আগামি কিছুদিনের ভেতর বাজারে আসবে। এখন আমরা যদি এমন প্রোডাক্ট খুজে পাই যেগুলো আগামি কিছুদিনের ভেতর বাজারে আসছে এবং আমরা ঐ প্রোডাক্ট এর অ্যাফিলিয়েট লিঙ্ক যদি আগেই নিয়ে নিতে পারি। তাহলে আমরা অনেক লাভবান হতে পারবো। 

সেটা কিভাবে ?

চিন্তা করে দেখুন যেই প্রোডাক্ট এখনো বাজারে আসেনি সেই প্রোডাক্ট কি গুগলে সার্চ করলে পাওয়া যাবে? আপনার উত্তর অবশ্যই “না”। আর ওই প্রোডাক্ট নিয়ে এখনো কেউ কি নিজের সাইটে কোন আর্টিকেল পাবলিশ করেছে। আশা করা যায় পাবলিশ করেনি। 

এখন আমার প্লান হচ্ছে যদি আমি ওই প্রোডাক্ট এর তথ্য পাই যে আগামি কিছুদিনের ভেতর ১ টা প্রোডাক্ট বাজারে আসছে এবং ঐ প্রোডাক্ট এর অ্যাফিলিয়েট লিঙ্ক যদি আমি আগে থেকেই পাই। এবং ঐ প্রোডাক্ট বাজারে ছাড়ার আগেই যদি আমি ১ টি আর্টিকেল এবং ভিডিও বানিয়ে ফেলি তাহলে ওই প্রোডাক্ট এর ত্থ্য লিখে যেউ যদি গুগলে সার্চ করে তাহলে কার ভিডিও এবং আর্টিকেল গুগল লিস্টে প্রথমে দেখাবে?

উত্তর, অবশ্যই আমার ভিডিও এবং আমার আর্টিকেল। কারন গুগল ওই প্রোডাক্ট এর তথ্য শুধু আমার সাইটেই খুজে পাবে। এবং আরেকদিকে ওই প্রোডাক্ট এর কিওয়ার্ড গুগলে এত সার্চ ভলিউম নেই এজন্য কম্পিটিশন ও অনেক কম থাকবে। এবং আমি খুব সহজেই ঐ কিওয়ার্ডে র‍্যাঙ্ক এ থাকবো।

আপনি হয়তোবা ভাবতে পারেন আসলেই এই সিস্টেম কাজ করে কিনা? নিচে আমার একাউন্ট এর একটা স্ক্রিনশর্ট দিচ্ছি এবং এই সিস্টেম আসলেই কাজ করে এবং আপনি জানলে অবাক হবেন শুধুমাত্র এই রিভিউ ভিডিও দিয়ে Mike From Maine মাসে ২০-৩০ হাজার ডলার ইনকাম করে থাকে।

উপরের ছবিটি দেখুন আমার পারসোনাল একাউন্ট এর একটা স্ক্রিনশর্ট যেখানে আমি প্রিতিদিন ৫০-১০০ ডলার ইনকাম করেছি শুধুমাত্র রিভিউ ভিডিও এর মাধ্যমে। এখন আশুন কিভাবে কাজ করতে হবে সেটা দেখে নেই।

কাজের স্টেপ গুলো কি হবে?

১। নিশ সিলেকশনঃ প্রথমে আপনাকে নিশ সিলেক্ট করতে হবে। এই স্ট্রেটিজি ভালো কাজ করবে মেক মানি অনলাইন নিশ এর ক্ষেত্রে। আমি ব্যক্তিগতভাবে মেক মানি অনলাইন নিশ নিয়ে কাজ করি। এজন্য আপনি যদি মেক মানি অনলাইন নিশ এ কাজ করেন তাহলে পরবর্তী স্টেপ ফলো করুন।

২। অ্যাফিলিয়েট মার্কেটপ্লেসে একাউন্টঃ আপনাকে নিশ সিলেক্ট করার পর যে কোন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটপ্লেসে একাউন্ট করে নিতে হবে। তবে এই কাজের জন্য বাংলাদেশ থেকে সহজ হবে যেখানে একাউন্ট করা সেটা হচ্ছে JVZoo. এই মারকেটপ্লেসে একাউন্ট করে নিতে পারেন এখান থেকে।

৩। আপকামিং প্রোডাক্ট খুজে বেড় করাঃ আপনার একাউন্ট রেডি হয়ে গেলে এর পরবর্তী স্টেপটি হলো আপকামিং প্রোডাক্ট খুজে বের করা। এই কাজ টি সহজে খুজে বের করার জন্য আপনি এই লিঙ্কে তথ্য খুজে পাবেন। 

যখন আপনি এখানে কোন লিঙ্কে ক্লিক করবেন তখন নিচের মত পেজ পাবেন।

এখানে দেখুন এই প্রোডাক্ট টি আগামি ২০ তারিখে বাজারে আসবে। আপনি আগামি ১ মাস পর কি প্রোডাক্ট আসবে সেটাও এখান থেকে দেখতে পারবেন। আপনি এখান থেকে ভালো একটি প্রোদাক্ট বাছাই করবেন এবং তাদের JV Page এ ক্লিক করে অ্যাফিলিয়েট লিঙ্ক এর জন্য রিকোয়স্ট করতে পারবেন। 

এখানে Get Your Affiliate Link এ ক্লিক করলেই আপনার অ্যাফিলিয়েট লিঙ্ক এর জন্য অপশন আসবে এবং সরাসরি JVZoo মার্কেটপ্লেসে অ্যাফিলিয়েট পেজ ওপেন হবে। এখানে আপনাকে রিকয়েস্ট করতে হবে। যদি তারা পারমিশন দেয় তাহলে আপনি কাজ শুরু করতে পারবেন।

৪। রিভিউ ভিডিও তৈরি করাঃ আপনি যদি ওই প্রোডাক্ট এর মালিককে কনভেন্স করে ওই প্রোডাক্ট এর একটি কপি নিতে পারেন তাহলে আপনার জন্য অনেক সুবিধা হবে। আমি পরবর্তীতে একটি আর্টিকেল এ চেস্টা করবো কিভাবে আপনি প্রোডাক্ট এর মালিকের কাছ থেকে একটি প্রোডাক্ট কপি ফ্রি কালেক্ট করতে পারেন। এবং সেই প্রোডাক্ট দিয়ে কিভাবে ভিডিও বানাবেন। 

আপনাকে এই স্টেপ এ যা করতে হবে তা হচ্ছে আপনাকে প্রথমে ওই প্রোডাক্ট সম্পর্কে আগে ভালোভাবে বুঝতে হবে তা কিভাবে কাজ করে। এর পর আপনি নিজে বা অন্য কাউকে দিয়ে ওই প্রোডাক্ট এর উপর একটি রিভিউ আর্টিকেল লিখবেন এবং একটি ভিডিও বানাবেন। 

৫। বেসিক SEO: আপনার রিভিউ ভিডিও এবং আর্টিকেল হয়ে গেলে সেগুলো পাবলিশ করুন এবং বেসিক কিছু SEO এর কাজ করুন। আশা করি আগামি ৭-১৪ দিনের ভেতর আপনার কনেটেন্ট গুগলে র‍্যাঙ্ক হ্যে যাবে। এবং যেদিন ওই প্রোডাক্ট বাজারে আসবে সেদিন থেকে আপনি ফ্রি ভিজিটর পাওয়া শুরু করবেন।